ক্রীড়া ডেস্ক : নিউজবিডি সম্প্রতি পাকিস্তান দলের প্রধান নির্বাচকের পদ ছেড়েছেন মিসবাহ উল হক। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, পরিবর্তন আসতে পারে আরেকটি পদেও। সেটি কি? জাতীয় দলের টেস্ট অধিনায়কের পদ। পিসিবির একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, টেস্ট অধিনায়ক আজহার আলীর নেতৃত্ব নিয়ে খুব একটা খুশি নয় বোর্ড। কিন্তু পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানের কিছুটা সমর্থন আছে বলেই এতদিন আজহারকে সরানোর কথা ভাবেনি পিসিবি। তবে এবার নতুন করে মূল্যায়ন করা হবে আজহারের পারফরম্যান্স। পাকিস্তানের সংবাদপত্র 'দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালক'কে সূত্রটি জানিয়েছে, পিসিবির ক্রিকেট কমিটির উচ্চ পর্যায়ের একজন আজহারকে টেস্ট অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার পক্ষে। এর আগে ওয়ানডেতেও পাকিস্তান দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আজহার। কিন্তু দলের ক্রমাগত ব্যর্থতায় সরিয়ে দেয়া হয় তাকে। টেস্ট নেতৃত্ব হারিয়ে ফেলা তার জন্য তাই অপ্রত্যাশিত ব্যাপার হবে না। এছাড়া কদিন আগে বিভাগীয় ক্রিকেট নিয়ে কথা বলার জন্য প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে তার বাসভবনে গোপনে দেখা করতে যাওয়াদের মধ্যে আজহার একজন। ছিলেন মিসবাহ উল হক এবং অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার মোহাম্মদ হাফিজও। বোর্ডকে না জানিয়ে সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করায় পিসিবি এই ক্রিকেটারদের ওপর খেপে রয়েছে এমনিতেই। এমনকি মিসবাহ আর আজহারকে এই ঘটনায় তলবও করেছিল পিসিবি। মিসবাহ তো প্রধান নির্বাচকের পদ হারালেন, এবার কি তবে আজহারের পালা? উত্তরটা সময়ই দিয়ে দেবে।