চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে ৮ নম্বর ওয়ার্ডের একটি কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ সমর্থিত দুই কাউন্সিলর পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনায় আবদুল মাবুদ নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি বর্তমান কাউন্সিলর আবদুল মান্নানের ছোট ভাই বলে জানা গেছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরো চারজন। পৌরসভা এলাকার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ গোবিন্দারখিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই কেন্দ্রের সামনের তিনটি দোকান ও একটি আনসার ক্যাম্পে আগুন ধরিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষের পরই দুই কাউন্সিল পদপ্রার্থী আবদুল মান্নান ও সরোয়ার কামাল রাজিবকে আটক করেছে পুলিশ। জানা গেছে, এ সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হওয়ার পর হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান আবদুল মাবুদ। এরই মধ্যে ওই এলাকায় পুলিশ ও র‍্যাবের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেছেন, ‘দক্ষিণ গোবিন্দারখিল ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ভোটকেন্দ্রে সহিংসতায় একজন নিহত হয়েছেন বলে শুনেছি।’ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পটিয়া সার্কেল) মো. তারিকুর রহমান জানিয়েছেন, ইভিএমের মাধ্যমে পটিয়া পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রশাসনের লোকজন ভোটকেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করছেন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সম্পন্ন করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পটিয়ায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩৯ হাজার ৭৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২০ হাজার ৯২৫ জন ও নারী ভোটার ১৮ হাজার ৮৬২ জন। পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডে ১৮টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে।